Create Apple ID (Bangladesh)

আমি মাত্র ২০০ টাকায় Apple ID  খুলি। Bangladesh এর যেকোন জায়গা থেকে।
আগে টাকা না। আগে কাজ পরে টাকা।

Apple ID কি?

এ্যাপল আইডি মূলত একটি ইউজারনেম। যেটি এ্যাপলের প্রদত্ত সুবিধাসমূহ উপভোগ করার জন্য আবশ্যক। একটি এ্যাপল আইডির সাহায্যে আপনি, iTunes Store থেকে বিভিন্ন রকমের এপ্লিকেশন ডাউনলোড করতে পারবেন, iChat কিংবা iCloud এ লগ-ইন করতে পারবেন, Apple Online Store থেকে কোন কিছু কিনতে পারবেন, Apple Retail Store এ reservation দিতে পারবেন, Apple.com থেকে বিভিন্ন রকমের সহায়তা পাবেন ইত্যাদি।

Apple ID

কিন্তু অত্যান্ত দুঃখের বিষয়টি হল আমাদের দেশে পেপাল কিংবা Credit Card সহজলোভ্য না হওয়ায় আইফোন/আইপ্যাড/আইপড কেনার পর বাংলাদেশের বেশিরভাগ ব্যাবহারকারীই Apple ID খোলা নিয়ে সমস্যায় পড়েন। তবে ক্রেডিট কার্ড ছাড়াও এ্যাপল আইডি খুলা সম্ভব হলেও পদ্ধতিটি অনেকেরই অজানা।

ক্রেডিট কার্ড ছাড়াই ফ্রিতে Apple ID খোলার পদ্ধতিঃ

১। iTunes ইনস্টলঃ

Apple ID খোলার জন্য প্রথমে আপনাকে iTunes এর প্রয়োজন পড়বে।

২। iTunes চালু করে iTunes Store এ ক্লিক করুন।

Apple ID Bangladesh

৩। App Store এর ড্রপ ডাউন মেনু থেকে Great Free Apps এ ক্লিক করুন

Apple ID

৪। এবার একটি ফ্রি App পছন্দ করুন এবং Free বাটনটিতে ক্লিক করুন

৫। আইটিউনস এ আপনাকে সাইন-ইন করার জন্য বলা হবে। আপনি Create New Account এ ক্লিক করুন।

৬। Welcome উইনডো এবং Agreement পেপারে যথাক্রমে Continue এবং Agree বাটনে ক্লিক করুন।


৭। প্রয়োজনীয় তথ্যাদি দিয়ে ফরমটি ফিলাপ করুন এবং Continue করুন।

নোটঃ পাসওয়ার্ড অবশ্যই মৌলিক হতে হবে। অর্থাৎ পাসওয়ার্ডে কমপক্ষে একটি বড়হাতের অক্ষর একটি ছোটহাতের অক্ষর এবং নম্বর থাকতে হবে, আর পাসওয়ার্ডটি অবশ্যই ৮ অক্ষরের হতে হবে। (উদাহরণঃ TaRikul12345 )
৮। Payment Type থেকে None এ ক্লিক করুন এবং Billing Address গুলি নিচের স্কিনশর্টটির মত লিখুন (শুধুমাত্র নামের জায়গায় আপনার নাম লিখুন)। এবং সবশেষে Create Apple ID তে ক্লিক করুন।

৯। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আপনাকে আপনার E-Mail এড্রেসটি Verification করতে বলা হবে।

১০। আপনার ই-মেইল একাউন্টে প্রবেশ করুন এবং Apple থেকে মেইলটি ওপেন করে Verify Now > তে ক্লিক করুন।

১১। ইমেইল এড্রেসটি যাচাই করতে আপনাকে লগ-ইন করতে বলা হবে। আপনার ইমেইল এড্রেস এবং পাসওয়ার্ডটি দিয়ে লগিন করুন।

১২। সফলভাবে লগ-ইন হলে Email Address Verified ম্যাসেজ দেখাবে। Return to the Store এ ক্লিক করুন

১৩। কিছুক্ষণের মধ্যেই আপনাকে iTunes এ ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়া হবে এবং Congratulations নাকম একটি ম্যাসেজ দেখাবে। সবশেষে Start Shopping এ ক্লিক করুন।

১৪। এখন আপনি আপনার সদ্য তৈরীকৃত Apple ID দিয়ে iTunes থেকে ইচ্ছামত ফ্রি এপ্লিকেশনগুলি ডাউনলোড করতে পারবেন।

contact
Email: ipctstudent@gmail.com

Email: tt107676@gmail.com
Phone: 01982973837

http://www.techtunes.com.bd/?p=335392&preview=true

বুট বা C: ড্রাইভ এর সাথে অন্য কোন ড্রাইভ বা ফ্রী স্পেস অ্যাড করার নিয়ম

আমরা অনেকই জানি বুট বা C: ড্রাইভ এর
সাথে অন্য কোন ড্রাইভ বা ফ্রী স্পেস অ্যাড
করা যায়না ,
আর অ্যাড করলেও তা আর অ্যাড
হয়না বরং উইন্ডোজ কে নষ্ট করে দেয়
এবং একটা ইরর মেসেজ দেয় স্ক্রীন এ …
ছবিতে তার একটি উদাহরণ দেওয়া হলো—
তা হলে কি আমরা এই সমস্যার সমাধান
পাবোনা ??

BTtutorial
হ্যাঁ আমরা সমাধান পাবো-
যা যা করনীয় —
১। আপনার উইন্ডোজ ডিস্ক আপনার কম্পিউটার
এ প্রবেশ করাতে হবে ।
২।আপনি যে ভাবে উইন্ডোজ সেটআপ দেন ঠিক
ওই ভাবে ১ থেকে ২য় স্টেপ পর্যন্ত
এগিয়ে জেতে হবে ।
৩। Windows install / Install windows এর
নিচে আপনি দেখবেন যে Windows repair /
repair your computer নামের একটা অপশন
আছে, সেটাই যান।
৪। আপনাকে এখন windows installation
ড্রাইভার সিলেক্ট করতে বলবে, আপনি (c:\)
সিলেক্ট করবেন(usually).
৫। নেক্সট এ ক্লিক করবেন।
৬।অনেক অপশন আসতে পারে ।।
এবং আসবে লিস্ট আকারে , আপনাকে Command
Prompt সিলেক্ট করতে হবে ।
৭। এবং নিচে দেওয়া কিছু কোড লিখে এন্টার চাপ
দিলে হই যাবে ।।
[
Bootrec /fixmbr
Bootrec /fixboot
Bootrec /rebuildcd
]
সব কাজ শেষ হলে Restart দিলে দেখবনে আপনার
কম্পিউটার আবার আগের মতো ।
http://www.facebook.com/BTtutorial
http://www.twitter.com/BTtutorial

searchfeed

দৈনন্দিন জীবনে ব্যবহৃত কিছু শব্দের পূর্ণরূপ

১। HTTP এর পূর্ণরূপ — Hyper Text Transfer
Protocol.
২। HTTPS এর পূর্ণরূপ — Hyper Text Transfer
Protocol Secure.
৩। IP এর পূর্ণরূপ— Internet Protocol.
৪। URL এর পূর্ণরূপ — Uniform Resource
Locator.
৫। USB এর পূর্ণরূপ — Universal Serial Bus.
৬। VIRUS এর পূর্ণরূপ — Vital Information
Resource
Under Seized.
৭। SIM এর পূর্ণরূপ — Subscriber Identity
Module.
৮। 3G এর পূর্ণরূপ — 3rd Generation.
৯। GSM এর পূর্ণরূপ — Global System for
Mobile
Communication.
১০। CDMA এর পূর্ণরূপ — Code Divison Multiple
Access.
১১। UMTS এর পূর্ণরূপ — Universal Mobile
Telecommunication
System.
১২। RTS এর পূর্ণরূপ — Real Time Streaming
১৩। AVI এর পূর্ণরূপ — Audio Video Interleave
১৪। SIS এর পূর্ণরূপ — Symbian OS Installer
File
১৫। AMR এর পূর্ণরূপ — Adaptive Multi-Rate
Codec
১৬। JAD এর পূর্ণরূপ — Java Application
Descriptor
১৭। JAR এর পূর্ণরূপ — Java Archive
১৮। MP3 এর পূর্ণরূপ — MPEG player lll
১৯। 3GPP এর পূর্ণরূপ — 3rd Generation
Partnership
Project
২০। 3GP এর পূর্ণরূপ — 3rd Generation Project
২১। MP4 এর পূর্ণরূপ — MPEG-4 video file
২২। AAC এর পূর্ণরূপ — Advanced Audio
Coding
২৩। GIF এর পূর্ণরূপ — Graphic
Interchangeable
Format
২৪। BMP এর পূর্ণরূপ — Bitmap
২৫। JPEG এর পূর্ণরূপ — Joint Photographic
Expert
Group
২৬। SWF এর পূর্ণরূপ — Shock Wave Flash
২৭। WMV এর পূর্ণরূপ — Windows Media
Video
২৮। WMA এর পূর্ণরূপ — Windows Media
Audio
২৯। WAV এর পূর্ণরূপ — Waveform Audio
৩০। PNG এর পূর্ণরূপ — Portable Network
Graphics
৩১। DOC এর পূর্ণরূপ — Document (Microsoft
Corporation)
৩২। PDF এর পূর্ণরূপ — Portable Document
Format
৩৩। M3G এর পূর্ণরূপ — Mobile 3D Graphics
৩৪। M4A এর পূর্ণরূপ — MPEG-4 Audio File
৩৫। NTH এর পূর্ণরূপ — Nokia Theme(series
40)
৩৬। THM এর পূর্ণরূপ — Themes (Sony
Ericsson)
৩৭। MMF এর পূর্ণরূপ — Synthetic Music Mobile
Application File
৩৮। NRT এর পূর্ণরূপ — Nokia Ringtone
৩৯। XMF এর পূর্ণরূপ — Extensible Music File
৪০। WBMP এর পূর্ণরূপ — Wireless Bitmap
Image
৪১। DVX এর পূর্ণরূপ — DivX Video
৪২। HTML এর পূর্ণরূপ — Hyper Text Markup
Language
৪৩। WML এর পূর্ণরূপ — Wireless Markup
Language
৪৪। CD এর পূর্ণরূপ — Compact Disk.
৪৫। DVD এর পূর্ণরূপ — Digital Versatile Disk.
৪৬। CRT — Cathode Ray Tube.
৪৭। DAT এর পূর্ণরূপ — Digital Audio Tape.
৪৮। DOS এর পূর্ণরূপ — Disk Operating System.
৪৯। GUI এর পূর্ণরূপ — Graphical User
Interface.
৫০। ISP এর পূর্ণরূপ — Internet Service
Provider.
৫১। TCP এর পূর্ণরূপ — Transmission
Control Protocol.
৫২। UPS এর পূর্ণরূপ — Uninterruptible Power
Supply.
৫৩। HSDPA এর পূর্ণরূপ — High Speed
Downlink
Packet Access.
৫৪। EDGE এর পূর্ণরূপ — Enhanced Data Rate
for
GSM [Global System for Mobile
Communication]
৫৫। VHF এর পূর্ণরূপ — Very High Frequency.
৫৬। UHF এর পূর্ণরূপ — Ultra High Frequency.
৫৭। GPRS এর পূর্ণরূপ — General Packet Radio
Service.
৫৮। WAP এর পূর্ণরূপ — Wireless
Application Protocol.
৫৯। ARPANET এর পূর্ণরূপ — Advanced
Research
Project Agency Network.
৬০। IBM এর পূর্ণরূপ — International Business
Machines.
৬১। HP এর পূর্ণরূপ — Hewlett Packard.
৬২। AM/FM এর পূর্ণরূপ — Amplitude/
Frequency
Modulation.
৬৩। WLAN এর পূর্ণরূপ — Wireless Local Area
Network

searchfeed
Anisur Rahaman
http://www.facebook.com/BTtutorial
http://www.twitter.com/BTtutorial

Google Adsense approval

You should keep in mind the following points
before applying to Google Ad sense:
1. Use the top level domain.
2. Select a good place hosting.
3. Use theme with white background.
Premium theme will be best. Check the theme
before using. Install Theme Authenticity
Checker (TAC) plug-in to check your theme.
4. Better to use a Nish blog. Google will like it.
5. You must write unique content. At least it
should be between 300-400 words content.
The chances will be more if your site is in
English.
High Quality Content
Article rewriting tips
6. At least you should have 20-30 posts.
7. No blank page should be there.
8. Must use copy write free images.
9. In your website, you must have these three
pages- About page ,contact page and Private
policy page .
10. Your website should have Google
indexing.
11. Any dirty content,
drugs ,gambling ,Google products and
hacking related contents will not get
approval.
12. Your site should be 3-4 months old.
13. You should have clear page navigation.
14. Before applying to Ad sense ,you should
disable other Ads.
15. After applying to Ad sense before getting
approval (review time), you must not enter
the back end of the site, must not post
anything . If yours is a hosted Ad sense
account then don’t log in .
If you apply by following the above
mentioned rules, then there is 99% chance to
get your Ad sense account.

searchfeed

http://www.facebook.com/BTtutorial
http://www.twitter.com/BTtutorial

গুগল এডসেন্স শেখার বাংলা ভিডিও ও সফটওয়্যার

আসসালামু আলাইকুম, কেমন আছেন আপনারা? ভালো থাকুন সব সময়।

অনলাইন এনকাম (online income)
সম্পর্কে আমরা সবাই ই কমবেশি অবগত আছি। আর আমরা এও জানি যে অনলাইনে আয়ের সবচেয়ে নিরাপদ ও সহজ উপায় হলো গুগল এডসেন্স
(google adsense)। কিন্তু সামান্য কিছু বিষয় আমাদের জানা নেই বলে আমরা অনেক চেষ্টা করেও এই এডসেন্স একাউন্ট লাভ করতে পারি না। ফলে অনেকেই গুগল এডসেন্স (google adsense) এর আশা ছেড়ে দেই এবং গুগল এডসেন্স এর বিকল্প এ্যাড ইউনিট নিয়ে কাজ করি। কিন্তু গুগল এডসেন্স (google adsense) এর ধারে কাছে ভিড়ার মত আয় অন্য এ্যাড ইউনিট দ্বারা করা অনেকটাই কষ্টকর। তাই আজকে মার্কস আইটি আপনাদের দিচ্ছে গুগল
এডসেন্স বিষয়ক টিউটোরিয়াল সফটওয়্যার ফ্রি!!
Download Bangla Adsense Tutorial Software For Free!!
গরম গরম ডাউনলোড করুন সফটওয়্যারটি আর সাধনা করুন গুগল এডসেন্স নিয়ে। আর যুক্ত হোন অনলাইন আণিং এর সর্ববৃহৎ প্লাটফর্ম গুগল
এডসেন্স এর সাথে!!
Download here >> http://www.mediafire.com/download.php?nc2lvg09xpe5t40

ফেসবুক পেইজ > http://www.facebook.com/BTtutorial

twitter > http://www.twitter.com/BTtutorial

C program to delete a file — The remove function in C/ C++ can be used to delete a file.

C program to delete a file — The remove
function in C/ C++ can be used to delete a file.
The function returns 0 if files is deleted
successfully, otherwise returns a non zero
value.
#include
int main()
{ if (remove(“abc.txt” ) == 0) printf (“Deleted
successfully” );
else
printf (“Unable to delete the file” );
return 0;
}

Grameenphone service code

Account- *566#
own number=*2#
Bonus – (1) *566*8#
Bonus – (2) *566 *9#
Bonus – (3) *577*3#
MB check – *566*10#
Advance – *1010*1#
Advance Balance – *566*28# Pakage = P send 4444
Pakage change – S-D-A-B send 4444
1sec palse – SP send 4444
Miss call Alert – START MCA send 6222
Miss Alert off – STOP MCA send 6222
Super FnF – SF number send 2888 Super fnf change – SFC old no new
no send 2888 Old
FnF – *111*2*1*1#
Net pakage – *111*6*1
pakage change to list – *111*4# Off sim offer – Check send 9999.
http://www.facebook.com/BTtutorial

Teletalk, Grameenphone, Banglalink, Airtel, Citycell, Robi usefull code

► গ্রামীনফোন
USSD মেনু *111#
নিজের নাম্বার জানতে *২#
ব্যালেন্স জানতে *৫৬৬#
রিচার্জ করতে *৫৫৫* গোপন নাম্বার #
কাস্টমার কেয়ার : ১২১ এ ফোন দিয়ে ১ প্রেস
করে ০
অন্য অপারেটর থেকে গ্রামীন ফোন কাস্টমার
কেয়ার
০১৭১১-৫৯৪৫৯৪
► রবি
USSD মেনু *140#
নিজের নাম্বার জানতে *১৪০*২*৪#
ব্যালেন্স জানতে *২২২#
রিচার্জ করতে *১১১* গোপন নাম্বার #
কাস্টমার কেয়ার : কাস্টমার কেয়ার : ১২৩ এ
ফোন দিয়ে ১
প্রেস করে ০
যেকোনো অপারেটর থেকে রবি কাস্টমার কেয়ার
০১৮১৯৪০০৪০০
► বাংলালিংক
USSD মেনু *789#
নিজের নাম্বার জানতে *৫১১#
নিজের নাম্বার জানতে *৬৬৬#
ব্যালেন্স জানতে *১২৪#
রিচার্জ করতে *১২৩* গোপন নাম্বার #
কাস্টমার কেয়ার : ১২১ অথবা ২১২
যে কোনো অপারেটর থেকে বাংলালিংক
কাস্টমার কেয়ার
০১৯১১-৩০৪১২১
► এয়ারটেল
USSD মেনু *121#
নিজের নাম্বার জানতে *১২১*৬*৩#
ব্যালেন্স জানতে *৭৭৮#
রিচার্জ করতে *৭৮৭* গোপন নাম্বার #
কাস্টমার কেয়ার : ৭৮৬
অন্য অপারেটর থেকে এয়ারটেল কাস্টমার
কেয়ার
০১৬৭৮৬০০৭৮৬
► টেলিটক
নিজের নাম্বার জানতে মেসেজ অপশনে লিখুন
TAR পাঠিয়ে দিন
২২২ নাম্বারে or টেলিটক
নিজের নাম্বার জানতে *551#
ব্যালেন্স জানতে *১৫২#
রিচার্জ করতে *১৫১* গোপন নাম্বার #
কাস্টমার কেয়ার : ১২১
যেকোনো অপারেটর থেকে টেলিটক কাস্টমার
কেয়ার
০১৫৫-০১৫৭৭৫০ থেকে ৬০
►সিটিসেল
নিজের নাম্বার জানতে – নাই
ব্যালেন্স জানতে বা দেখতে *৮৮৭ ডায়াল
ব্যালেন্স শুনতে *৮১১ ডায়াল
রিচার্জ করতে *৮৮৮ ডায়াল
কাস্টমার কেয়ার : ১২১
যেকোনো অপারেটর থেকে সিটিসেল কাস্টমার
কেয়ার
০১১৯৯-১২১১২১
http://www.facebook.com/BTtutorial

এবার বাংলালিংক দিচ্ছে ২ দিন আনলিমিটেড

পুরো পোস্ট ভালোভাবে পরুন।
প্রথমে
*5000*6*2#
ডায়াল
করে ৩জি একটিভ করুন (যদি না করা থাকে)।
তারপর একটি ছোট ৩জি প্যাক
কিনুন 5mb=2.5 tk
*5000*1*3*4*1#
এখন
*222*1*9#
ডায়াল করে বাংলালিংক
day মর্নিং আনলিমিটেড প্যাক
(5-10am) একটিভ করুন (২৩
টাকা কাটবে)। আর আপনার মিশন
শুরু করে দিন।
আমি এই ট্রিক ফলো করে 2
দিনে ৬ -৭ জিবি ডাউনলোড করি।
স্পিড ২৫০+kbps all time.
রাত ১২ টার পর প্যাক একটিভ
করলে ২ দিন ব্যবহার
করতে পারবেন.
(বি: দ্র: অঞ্চলভেদে স্পিড কম
বেশি থাকতে পারে। চেক না করে কেউ ফালতু
কমেন্ট করবেন না)
.
.
ফেসবুকে শেয়ার করো হয়ত তোমার
বন্ধুর কোন উপকারে আসতে পারে ।
শেয়ার করার নিয়ম click on Facebook > share
Facebook Page

এ্যান্ড্রয়েডে পাসওয়ার্ড ভুলে গেলে কী করবেন!!!!!

বর্তমানে প্রায় সবাই এ্যান্ড্রয়েড চালিত
স্মার্টফোন ব্যবহার করে থাকে । এ্যান্ড্রয়েড
চালিত ফোনগুলোতে রয়েছে অনেক ধরনের
সুবিধা । আর এরই অংশ হিসেবে ফোনটি নিরাপদ
রাখার ক্ষেত্রে রয়েছে কয়েক ধরনের
সুবিধা যেমন- পাসওয়ার্ড, প্যাটার্ন লক, পিন লক
। এদের মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয়
সিকিউরিটি সিস্টেমটি হচ্ছে ‘প্যাটার্ন লক’ ,
এটি অনেকেই ব্যবহার করে থাকে । আবার
এটি ভুলেও যায় অনেকে ।
যেকারনে ফোনটিকে পুনরুদ্ধার করার জন্য
ফ্ল্যাশ বা পুনরায় অপারেটিং সেটআপ দিতে হয় ।
আর এটি করার জন্য অর্থও খরচ করতে হয় ।
কিন্তু, এবার কারও কাছে না গিয়ে আপনি নিজেই
এই কাজটি করতে পারেন । আর এজন্য :-
১. প্রথমে ভলিউমের (আওয়াজ কমান-বাড়ানোর)
বাটন দুটি চেপে ধরুন
২. ফোন অন-অফ করার বাটনটি চেপে ধরে রাখুন,
যতক্ষণ না পর্যন্ত ফোনটি চালু হয় ।
৩.এরপর দেখবেন চারটি অপশন আসবে, তার মধ্য
থেকে রিসেট ফ্যাক্টরি সেটিংস্-এ চাপুন ।
এটি করার জন্য অপশন পছন্দের জন্য
ভলিউমের বাটনগুলো এবং অন-অফ করার
বাটনটি পছন্দ করার জন্য ব্যবহার করতে হবে ।
৪. এরপর কিছুক্ষন অপেক্ষা করতে হবে,
ফোনটি রিস্টার্ট হওয়া পর্যন্ত ।
Facebook

নিজের মোবাইল নম্বর জানার উপায়

কোনো কারণে আপনার নিজের মোবাইল ফোন
নম্বরটি মনে না আসলে কিংবা দীর্ঘদিন সিম বন্ধ
থাকার কারণে নম্বরটি মনে করতে না পারলে, সিম
নম্বরটি জানার সহজ উপায় রয়েছে। এবার
জেনে নিন কীভাবে আপনার সিমের নম্বর
জানবেন।
গ্রামীণফোনে নিজের নম্বর জানতে ডায়াল
করুন : *২# অথবা *১১১*৮*২#
বাংলালিংকে নিজের নম্বর জানতে ডায়াল করুন :
*৫১১#
রবিতে নিজের নম্বর জানতে ডায়াল করুন :
*১৪০*২*৪#
এয়ারটেলে নিজের নম্বর জানতে ডায়াল করুন :
*১২১*৬*৩#
টেলিটকে নিজের নম্বর জানতে মেসেজ করুন :
AR লিখে ২২২ নম্বরে।
.
.
ফেসবুকে শেয়ার করো হয়ত তোমার
বন্ধুর কোন উপকারে আসতে পারে ।
শেয়ার করার নিয়ম click on Facebook > share
Facebook Page

YouTube থেকে Video Download

ইউটিউব
ভিডিও আপনি বিভিন্নভাবে ডাউনলোড
করতে পারেন। তবে নতুন হিসেবে সবচেয়ে সহজ
উপায় হলো আপনার লিংক এর আগে শুধুমাত্র
১০ বা ss যোগ করে নতুন
সাইটে গিয়ে ভিডিওটি ডাউনলোড করা।
প্রক্রিয়াটি নিচে উপস্থাপন করা হলো।
ধরুন আপনি যে ভিডিওটি ডাউনলোড করবেন
তার লিংকটি এরকম-

mobile
http://m.youtube.com/watch?v=UUTRFBWkkhE
এখন আপনি এই লিংক এর আগে ১০ বা ss যোগ
করবেন ফলে আপনার
লিংকটি দেখতে হবে এরকম-
computer
http://www.10youtube.com/watch?v=UUTRFBWkkhE
http://www.ssyoutube.com/watch?v=UUTRFBWkkhE
mobile
http://m.10youtube.com/watch?v=UUTRFBWkkhE
http://m.ssyoutube.com/watch?v=UUTRFBWkkhE
এবার কী বোর্ড থেকে এন্টার প্রেস করুন। নতুন
একটি পেজ ওপেন
হবে যেখানে আপনি ডাউনলোড অপশন
দেখতে পাবেন। এছাড়া আপনি আপনার
পছন্দমত ফরম্যাট সিলেক্ট করে ডাউনলোড
করার সুযোগ পাবেন এই পেজ থেকে ।
এভাবে খুব সহজে ডাউনলোড করে নিন আপনার
পছন্দের ভিডিওটি। আমি ss ইউস করি।
.
.
ফেসবুকে শেয়ার করো হয়ত তোমার বন্ধুর কোন উপকারে আসতে পারে । শেয়ার করার নিয়ম click on Facebook > share
Facebook Page

গুগল এ্যাডসেন্স APPROVE হয়ার সবচেয়ে সহজ উপায়

গুগল এ্যাডসেন্স APPROVE হয়ার সবচেয়ে সহজ
উপায়
অনেকেই ভাবেন এ্যাডসেন্স এপ্রুভ হলেই
বুঝি ইনকাম শুরু হয়ে গেল! মূলতঃ এ্যাডসেন্স
এপ্রুভ হওয়ার পরই উপার্জনের জন্য আসল
কাজ শুরু হবে। অগ্রসর হতে হবে পরিকল্পিতভাবে,
যথেষ্ট সময় নিয়ে এবং চ্যালেঞ্জিং মনোভাব
নিয়ে। আমি আবারো মনে করিয়ে দিতে চাই,
বাংলাদেশে এমন অনেক ব্লগার/ এ্যাডসেন্স
ব্যবহারকারি আছেন, যাদের ইনকাম মাসে এক
হাজার ডলারেরও উপরে। কিভাবে সঠিক
পরিকল্পনা নিয়ে ব্লগিং করবেন, কম্পিটিশন ফেস
করে এগিয়ে যাবেন-আপনিও হতে পারেন
মাসে হাজার ডলার উপার্জনকারীদের একজন-এ
বিষয়ে পরবর্তীতে ইনশাল্লাহ্ আলোচনা করব। এ
আর্টিক্যালে মূলতঃ কিভাবে সহজে এ্যাডসেন্স
এপ্রুভ করাতে পারেন তার বিশদ গাইডলাইন
প্রদান করব।
১. কন্টেন্টঃ সম্পূর্ণ অরিজিনাল, ফ্রেশ কন্টেন্ট
হতে হবে। কপি-পেষ্ট কোনভাবেই করা যাবে না।
একই বিষয়বস্তু/ কন্টেন্ট দিয়ে সাইট তৈরি করুন।
এখানে অনেকেই গুলিয়ে ফেলেন-একটি সাইটেই
পাঁচমেশালী কন্টেন্ট দিয়ে পোষ্ট দিয়ে থাকেন।
যেমনঃ একটি সাইটেই টেকনোলজী, স্পোর্টস,
সাধারন জ্ঞান ইত্যাদি দিয়ে এ্যাডেসেন্সের
জন্য আবেদন করেন। এ ধরনের মিক্সড সাইট
গুগল সহজে এ্যাডসেন্সের জন্য এপ্রুভ করে না।
এজন্য প্রাথমিকভাবে একটি বিষয়ব্স্তু
নিয়ে ৩০/৪০টি ইউনিক পোষ্ট দিন।
২. সোস্যাল মিডিয়াঃ গুগল পান্ডা ও পেঙুইন
আপডেটের পরে গুগল সোস্যাল
মিডিয়া ইন্টারঅ্যাকশনকে খুবই গুরুত্ব প্রদান
করেন। সাইটে ফেসবুক ফ্যান বক্স সহ
প্রতিটি পোষ্টে ফেসবুক, টুইটার, গুগল প্লাস
ইত্যাদি সোস্যাল মিডিয়া বাটন সংযুক্ত করুন
এবং প্রতিটি পোষ্টকে সোস্যাল মিডিয়া সাইটের
সাথে শেয়ার করুন।
৩.ভাষাঃ সম্পূর্ণ ইংরেজিতে পোষ্ট দিতে হবে।
বাংলা পোষ্ট এ্যাডসেন্স এপ্রুভ করবে না।
৪. সাইট ডিজাইনঃ সাইটের ডিজাইন সিম্পল রাখুন।
অতিরিক্ত রংচটা কালার সাইটকে দৃষ্টিকটু দেখায়।
এছারা কোন লিংক যেন বোকেন না থাকে। অর্থাৎ,
লিংক আছে কিন্তু কাজ করছে না, গুগলের
কাছে সাইটটি যেন Under construction
মনে না হয়। এরুপ সাইট এ্যাডসেন্সের জন্য
এপ্রুভাল পাবে না।
সাইট ডিজাইনের ক্ষেত্রে ওয়ার্ডপ্রেস
বা জুমলা যে কোন একটি বেছে নিতে পারেন।
কারণ, এগুলো এসইও উপযোগী।
৫. ডোমেইনঃ যদিও অনেকে মনে করেন, সাব
ডোমেইন যেমনঃ ব্লগার
ইত্যাদি দিয়ে এ্যাডসেন্স এপ্রুভ করানো যায়।
কিন্তু, বর্তমানে সাব ডোমেইনে এপ্রুভ হওয়ার
সম্ভাবনা খুবই কম। তাই ২/৩ হাজার টাকা ব্যয়
করে একটি ডোমেইন/হোষ্টিং নিয়ে ব্লগিং শুরু
করা উচিৎ। এটা সহজে এ্যাডসেন্স পাওয়ার
উপযোগী।
৬. বিশেষ কতিপয় পেজঃ About Us, Private policy
ইত্যাদি নামে কিছু পেজ তৈরি করুন। About Us এ
আপনার নিজের বা সাইট সম্পর্কে সংক্ষিপ্ত
বিবরণ, একইভাবে Private policy পেজে আপনার
সাইটের বৈশিষ্ট্য, পাঠক সাইটকে কিভাবে ব্যবহার
করবে ইত্যাদি বিষয়কে সংক্ষেপে তুলে ধরুন।
৭. এ্যাডসেন্স এপ্রুভ হচ্ছে না, কি করবেন?
এ্যাডসেন্সের জন্য এপ্লাই করার পর এপ্রুভ
না হলে যে কারন দেখিয়ে মেসেজ দেয় তা ভালমত
পড়ে, বুঝে সে মোতাবেক ব্যবস্থা নিন।
যেমনঃ যদি মেসেজ দেয় Insufficient Contents
তাহলে পুনরায় কন্টেন্ট এর পরিমান ও কন্টেন্ট
আরো বিস্তারিত করে পোষ্ট দিয়ে পুনরায়
এপ্লাই করুন। অর্থাৎ, যে কারণ
দর্শিয়ে Disapprove হল-তা সমাধান করে পুনরায়
এপ্লাই করুন। মনে রাখতে হবে, অধিকাংশ
ব্লগারের এ্যাডসেন্স এপ্রুভ হতে ২ থেকে ২০
বা এমনকি কারো কারো ৫০ বার এপ্লাই করার
পরে এপ্রুভ হয়েছে।
আশা করি উপরোক্ত গাইডলাইন অনুযায়ী কাজ
করলে গুগল এ্যাডসেন্স এপ্রুভ হবে ইনশাল্লাহ্ । t

searchfeed

স্ক্রিনশর্ট সফটওয়্যার ছাড়া

আমার প্রথম পোস্ট খুবি সামান্য বিষয়
নিয়ে । এটা একটি ট্রিক্স ও বলতে পারেন।
আমি এর আগে দেখি নাই এই বিষয় অর্থাৎ
এই রকম পোস্ট। যদি থাকে বা কেউ এর
আগে করে আমাকে জানাবেন আমি এই
পোস্ট টি ডিলিট করে দিবো। অনেক দিন
অপেক্ষা করছি এই রকম পোস্ট পেলাম না।
তাই আজকে দিয়েই দিলাম।
যা হউক মুল কথায় আসি। টাইটেল টি সবাই
দেখেছেন। স্ক্রিনশর্ট নিয়ে পোস্ট।
এটা শুধু আমি মোজিলা দিয়ে চেস্টা করেছি।
মজিলা থেকে ব্রাউজ করার সময় আপনার
কি বোর্ড থেকে
Ctrl+Shift+M দিন।
দেখুন চলে আসলো মোবাইল পেজ। এখন
এখান থেকে ক্যামেরার মত আইকন
দিয়ে স্ক্রিনশর্ট নিন খুবি সহজে।
তাছাড়া আপনি স্ক্রিন সাইজ
বাড়িয়ে নিতে পারেন ওখান থেকে।
কেমন লাগলো জানাবেন।
ভালো লাগলে ভালো বলবেন, খারাপ
লাগলে কিছু বইলেন না।

কি ভাবে আপনার ওয়েবসাইট এ Google Drive এর Direct লিঙ্ক দিবেন। যাতে এক ক্লিক এ ডাউনলোড হয়-BTtutorial

কি ভাবে আপনার ওয়েবসাইট এ Google Drive এর Direct লিঙ্ক দিবেন। অনেকে জানেন অনেকে জানেন না (যারা জানেন না  শুধুমাত্র তাদের জন্য)  Direct লিঙ্ক দেবার একটাই সুবিধা ইউজার এর ওয়েট করতে হয়না কোন ফাইল ডাউনলোড করতে।

প্রথমে আপনার জিমেইল অ্যাকাউন্ট দিয়ে লগিন করুন এর পর নিচের ছবি গুলো ফলও করুন।

Create এ ক্লিক করুন

যে কোন একটি নাম দিয়ে ফাইল টি তৈরি করুন।

Folder টি সিলেক্ট করে নিচের মত শেয়ার এ ক্লিক করুন

অ্যাডভান্সে ক্লিক করুন।

Done এ ক্লিক করুন

On Public on The Web এ ক্লিক করুন।

ফাইল টি ড্রাগ করে ড্রপ করুন।

Upload share এ ক্লিক করুন

আপনার ফাইল সাইজ অনুযায়ি সময় লাগতে পারে

নিচের মত করে সেটিং করুন

কপি করার পর  ওয়েবসাইট এ গিয়ে কপি করা লিঙ্ক টি  পেস্ট করে দিন নিচের মত।
এর নিচের মত আউটপুট দেখতে পারবেন।

আর সবসময় Direct লিঙ্ক দেবার চেষ্টা করবেন।

ধন্যবাদ সবাইকে পোস্টটি পড়ার জন্য।

আপনার ফোন কি আসল ? BTtutorial

smartphone11-large-final  আপনার ফোন কি অরিজিনাল? নাকি ক্লোন/ মাস্টারকপি!! খুব সহজে আপনি দেখে নিন। smartphone11 large final

বাজার এ এখন নানা রকমের ক্লোন আর মাস্টারকপি ফোন দিয়ে ভরে গেছে । কোনটা আসল আর কোনটা নকল বোঝাই যায় নাহ ।

এদের প্রতারনার শিকার হয়েসেন এরকম অনেক আছে । এইতহ সেদিন ই আমার এক বন্ধু স্যামসাং  গালাক্সি এস ৫ কিনে ধরা খেল । ২৫০০০ টাকা ধরা খেয়েছে ।

আপনাকে যাতে আর ধরা খেতে না হয়  সে জন্যই আসলে এই টিউনটি করা  ।

কীভাবে বুজবো যে আমার ফোনটা আসল ?

  • প্রথমে  এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করুন।
  • তারপর আপনার ফোনের IMEI নাম্বার দিন নিচের ছবির মতো। (আপনার ফোনের  IMEI নাম্বার পাবেন *#06# প্রেস করে)

  • তারপর CHECK এ ক্লিক করুন।
  • অরিজিনাল ব্র্যান্ডের ফোন হলে আপনার ফোনের সকল তথ্য চলে আসবে। (নিচের ছবির মতো)

31  আপনার ফোন কি অরিজিনাল? নাকি ক্লোন/ মাস্টারকপি!! খুব সহজে আপনি দেখে নিন। 31

  • Read More এ ক্লিক করলে আরও বিস্তারিত পাবেন।
  • নন-ব্র্যান্ডের বা চায়না ফোনের বা ক্লোন বা মাস্টার কপির  IMEI দিলে কিছু আসবে না।

2  আপনার ফোন কি অরিজিনাল? নাকি ক্লোন/ মাস্টারকপি!! খুব সহজে আপনি দেখে নিন। 2

  • এভাবে আপনি আপনার ফোনটি আসল নাকি নকল অথবা মাস্টারকপি  তা সহজেই ধরতে পারবেন ।

ওয়েবসাইট থেকে আয় বৃদ্ধি করার কিছু টিপস

সব্বাইকে শুভেচ্ছা জানিয়ে আজকের টিউনটি শুরু করছি ।একটি ওয়েব সাইট যা আপনার বেকারত্ব ঘোচাতে পারে অনেকের জন্য যোগাতে পারে পকেট খরচের টাকা ।

কিভাবে ওয়েবসাইট বানাবেন ?

খুব সহজ । আজকাল ব্লগস্পট অথবা ওয়ার্ড প্রেস এর সাহায্যে খুব সহজেই আপনি একটি ওয়েবসাইট বানাতে পারেন ইচ্ছা করলে কিনে নিতে পারেন একটি ডোমেইন ও থিম ।

টাকা আয় করবেন কিভাবে?

হাঁ এবার আসি আসল কথায় সাইট আপনি খুব সহজেই বানাতে পারবেন কিন্তু ইনকাম হবে কেমন করে? দাঁড়ান… চিন্তার কিছু নেই । এর জন্য বেশি কিছু আপনাকে করতে হবে না। একটু পরিশ্রমী আর ক্রিয়েটিভ হলেই আর কিচ্ছু লাগবে না । কি নিয়ে সাইট বানাতে চান সেটি ঠিক করুন কাজে লেগে পড়ুন।এরপর দেখবেন শুরু হবে আপনার সাইটে ভিজিটরের আনাগোনা। এবার আসল কাজ আপনাকে খুজতে হবে কিছু ভাল অ্যাড নেটওয়ার্ক । আপনাকে আপনার সাইট এর ধরন অনুযায়ী সেগুলো খুঁজে নিতে হবে।বিভিন্ন অ্যাড নেটওয়ার্ক সাধারনত প্রতিদিন ,১৫ দিনে একদিন অথবা ৩০ দিন পর পেমেন্ট করে থাকে ।

ভাল কিছু অ্যাড নেটওয়ার্ক ( আমার মতে আমার সাইটে আমি এগুলই ব্যবহার করি )

১.বিডভারটাইজার

২.অ্যাডঅনলি

৩.পপ অ্যাডস

৪.পপ ক্যাশ

৫.অয়াইলিক্স

৬.প্রপেল্লার অ্যাডস ইত্তাদি…।।

এখানে টাকা ছাড়াই খুব সহজেই UK নাম্বার তৈরী করা যা

প্রথমে এখানে যান
http://uk.fwcall.com/ ;১ম স্টেপে country
থেকে Bangladesh সিলেক্ট করুন । তারপর
আপনার নাম্বারটি (যে কোন অপারেটর) শূণ্য
বাদে নাম্বারটি ২য় বক্সে লিখুন ।
ফ্রি নাম্বার ব্যস ! ১ম স্টেপ শেষ । get your
free uk number এ ক্লিক করুন ।এবার ২য়
স্টেপে আপনি দুভাবে এই রেজিঃ কম্প্লিট
করতে পারবেন । প্রথমটি হল, আপনার
ফেসবুক/ইয়াহু/গুগল একাউন্ট দিয়ে শুধু তাদের
এপ্লিকেশনটিতে join করে আপনার ঐ
একাউন্টের ইমেইল শেয়ারে Allow দিন ।
ফ্রি নাম্বার অথবা দ্বিতীয় পদ্ধতি হল
ওখানে সবার নিচের দিকে আপনার পূর্ণ নাম,
ইমেইল এড্রেস ও আপনার পছন্দ মত
একটি পাসওয়ার্ড দিয়ে Finish এ ক্লিক করুন ।
পরবর্তী পৃষ্টায় এই চিত্রের মত
আপনাকে একটি ( 44) সহ ১২ ডিজিটের অর্থাত্
একটি UK নাম্বার দিয়ে Congratulations
জানানো হবে ।এখন থেকে এই UK নাম্বারে যেই
কল করুক তা ফরওয়ার্ড হয়ে আপনার মূল (BD)
নাম্বারে কল আসবে ।উল্লেখ্যঃ ঐ
নাম্বারে কল দেওয়ার পর আপনি রিসিভ
করে ফেললে, যে কল দিয়েছে তার কাছ
থেকে UK কলিং চার্জ কাটা হবে ।এর সুবিধাঃ১।
এর প্রধান সুবিধা UK তে প্রবাসী আপনার
আত্মীয়স্বজনরা ঐ নাম্বারে কল দিয়ে খুবই
কম কস্টে আপনার সাথে কথা বলতে পারবে ।২।
আপনি আপনার বন্ধুদের চমকে দিতে পারেন এই
বলে যে আপনি দেশে থেকেই UK নাম্বার
ব্যবহার করছেন, ইত্যাদি-ইত্যাদি ।

আপনার চোখকে কিভাবে কম্পিউটারের কিংবা মোবাইলের ক্ষতিকর আলো হতে রক্ষা করবেন

কেমন আছেন সবাই?
আশা করি ভাল আছেন। অনেকে ভাল নেই
তাদের চোখের সমস্যার কারনে। কারন হয়ত
প্রয়োজনেই তাদেরকে অনবরত
কম্পিউটারের সামনে বসে থাকতে হচ্ছে ।
আর বেশিক্ষন কম্পিউটারের
সামনে বসে থাকলে চোখের যে কি হয়
তা পরেই বুঝা যায়। চোখেরই
বারটা বেজে গেছে। আবার আপনাদের অনেকের
বাচ্চা কাচ্চা সারাদিন কম্পিউটারের
সামনে বসে থাকে। এতে তাদের চোখের
সমস্যা হতে পারে অর্থাৎ চোখের power
কমে যেতে পারে । চোখের power
কমে গেলে আপনাদের চশমা ব্যাবহার
করতে হতে পারে। কিন্তু চোখের power
যাতে বেশি কমে না যায় সেই দিকেও
তো আমাদের খেয়াল রাখা প্রয়োজন!!!! এর
জন্য যা যা করতে হবে ঃ-
১। কম্পিউটারকে নিজ থেকে কমপক্ষে ৫০
থেকে ৭০ সেন্টিমিটার রাখা অত্যাবশ্যক।
(মোবাইলের ক্ষেত্রে কিছুটা কম)
২।কম্পিউটার চালানোর সময় চোখের
বিশ্রাম দিন । অন্তত কিছুক্ষনের জন্য ও
চোখ দুটোকে বন্ধ করুন । (মোবাইলের
ক্ষেত্রেও)
৩।কম্পিউটার চালানোর সময় চোখ
দুটোকে এদিকে সেদিকে ঘুরান । ডান
থেকে বামে, উপরে নিচে । (মোবাইলের
ক্ষেত্রেও)
৪।যারা চোখে লেন্স ব্যাবহার করেন তাদের
জন্য চোখকে কিছুক্ষন পরপর
ভেজা রাখলে ভাল হয় ।
নইলে তাড়াতাড়ি চোখ শুকনো
হয়ে যায় ।
৫। কম্পিউটার চালানোর সময় নিয়মিত শ্বাস
নিন। এতে আপনার চোখের অনেক উপকার
হবে ।
৬। আপনার কম্পিউটার কে অপেক্ষাকৃত
নিচে রাখুন। এতে আপনার চোখ সেইসময় ই
কম্পিউটার এ যাবে যখন আপনি তা দেখতে
চাইবেন